আমার মতো প্রাণ কাঁদিলে।

বুঝবি রে গৌরপ্রেমের কালে আমার মতো প্রাণ কাঁদিলে। দেখা দিয়ে গৌর ভাবের শহর আড়ালে লুকালে।। যেদিনে হতে গৌর হেরেছি আমাতে কী আমি আছি। কী যেন কী হয়ে গেছি প্রাণ কাঁদে গৌর বলে।। তোরা থাক জাত কূল লয়ে আমি যাই চাঁদ গৌর বলে। আমার দুঃখ বুঝলিনা রে এক মরণে না মরিলে।। চাঁদমুখেতে মধুর হাসি আমি [...]

2017-11-18T21:03:39+00:00 Tags: , , |

কি সন্ধানে যাই সেখানে।

কি সন্ধানে যাই সেখানে মনের মানুষ যেখানে। আঁধার ঘরে জ্বলছে বাতি দিবা রাতি নাই সেখানে।। যেতে পথে কাম নদীতে পাড়ি দিতে ত্রিবিনে। কতো ধনীর ভারা যাচ্ছে মারা পরে নদীর তোড় তুফানে।। রসিক যারা চতুর তারা তারাই নদীর ধারা চেনে। উজান তরী যাচ্ছে বেয়ে তারাই স্বরূপ সাধন জানে।। লালন বলে ম’লাম জ্বলে দিবানিশি জলে স্থলে। [...]

আহাদে আহাম্মদ এসে নবি নাম কে জানালে।

আহাদে আহাম্মদ এসে নবি নাম কে জানালে। যে তনে করিলে সৃষ্টি সে তন কোথায় রাখিলে।। আহাদ নামে পরওয়ার আহাম্মদ রূপে সে এবার। জন্মমৃত্যু হয় যদি তার শরার আইন কই চলে।। নবি যারে মানিতে হয় উচিৎ বটে তাই জেনে লয়। নবি পুরুষ কি সে প্রকৃতি কায় সৃষ্টির সৃজনকালে।। আহাদ নামে কেন রে ভাই মানবলীলা করিলেন [...]

আমার ঘরের চাবি পরেরই হাতে।

আমার ঘরের চাবি পরেরই হাতে। কেমনে খুলিয়া সে ধন দেখবো চক্ষেতে।। আপন ঘরে বোঝাই সোনা পরে করে লেনাদেনা। আমি হলাম জন্মকানা না পাই দেখিতে।। রাজি হলে দারোয়ানী দ্বার ছাড়িয়ে দেবেন তিনি। তারে বা কই চিনি শুনি বেড়াই কুপথে।। এই মানুষে আছে রে মন যারে বলে মানুষরতন। লালন বলে পেয়ে সে ধন না পাই চিনিতে।। [...]

আজব আয়না মহল মণি গভীরে।

আজব আয়না মহল মণি গভীরে। সেথা সতত বিরাজে সাঁইজী মেরে।। পূর্বদিকে রত্নবেদি তার উপরে খেলছে জ্যোতি। যে দেখেছে ভাগ্যগতি সচেতন সে সব খবরে।। জলের ভিতর শুকনো জমি আঠারো মোকাম তাই কায়েমি। নিঃশব্দে শব্দের উদ্‌গামী যা যা সেই মোকামের খবর জান গা যা রে।। মণিপুরের হাটে মনোহারি কল তেহাটা ত্রিবিনী তাহে বাঁকা নল। মাকড়শার আঁশে [...]

2017-06-03T21:04:15+00:00 Tags: , , , |

আমার ঘর খানায় কে বিরাজ করে।

আমার ঘর খানায় কে বিরাজ করে। জনম ভরে একদিনও তারে দেখলাম না রে।। নড়েচড়ে ঈশানকোণে দেখতে পাইনে এই নয়নে। হাতের কাছে যার ভবের হাট বাজার ধরতে গেলে হাতে পাইনে তারে।। সবে বলে প্রাণপাখি শুনে চুপে চেপে থাকি। জল কি হুতাশন মাটি কি পবন কেউ বলে না আমায় নির্ণয় করে।। আপন ঘরের খবর হয়না বাঞ্চা [...]

আপন মনের বাঘে যারে খায়।

আপন মনের বাঘে যারে খায়। কোনখানে পালালে বাঁচা যায়।। বন্ধ ছন্দ করিরে এঁটে ফস করে যায় সকলই কেটে। অমনি সে গর্জিয়ে ওঠে মন পাখিরে হানা দেয়।। মরার আগে যে মরতে পারে কোন বাঘে কি করতে পারে। মরা কি সে আবার মরে মরিলে সে অমর হয়।। মরার আগে জ্যান্তে মরা গুরুপদে মন নোঙ্গর করা। লালন [...]

আশা পূর্ন হলো না আমার মনের বাসনা।

আশা পূর্ন হলো না আমার মনের বাসনা।। বিধাতা সংসারের রাজা আমায় করে রাখলেন প্রজা। কর না দিলে দেয় গো সাজা কারো দোহাই মানেনা।। বাঞ্চা করি যুগল পদে সাধ মিটাব ঐ পদ সেধে। বিধি বৈমুখ হলো তাতে দিল সংসার যাতনা।। পড়ে গেলাম বিধির বামে ভুল হলো মোর মূল সাধনে। লালন বলে এই নিদানে মুর্শিদ ফেলে [...]

আপনারে আপনি চিনিনে।

আপনারে আপনি চিনিনে। দিন দোনের পর যার নাম অধর তারে চিনবো কেমনে।। আপনারে চিনতাম যদি মিলতো অটল চরণ নিধি। মানুষের করণ হতো সিদ্ধি শুনি আগম পুরাণে।। কর্তারূপের নাই অন্বেষণ আত্মার কি হয় নিরূপণ। আপ্ততত্ত্বে পায় সাধ্য ধন সহজ সাধক জনে।। দিব্যজ্ঞানী যেজন হলো নিজতত্ত্বে নিরঞ্জন পেলো। সিরাজ সাঁই কয় লালন রইলো জন্ম অন্ধ মন [...]

2017-06-03T21:04:19+00:00 Tags: , , |

আল্লাহ কে বোঝে তোমার অপার লীলে।

আল্লাহ কে বোঝে তোমার অপার লীলে। আপনি আল্লাহ ডাকো আল্লাহ বলে।। নিরাকারে তুমি নূরী ছিলে ডিম্ব অবতারী। সাকারে সৃজন করলে ত্রিভুবন আকারে চমৎকার ভাব দেখালে।। নিরাকার নিগম ধ্বনি সেও তো সত্য সবাই জানি। তুমি আগমের ফুল নিগমে রসুল আদমের ধড়ে জান হইলে।। আত্মতত্ত্ব জানে যারা সাঁইর নিগূঢ় লীলা দেখছে তারা। তুমি নীরে নিরঞ্জন অকৈতব [...]

2017-06-03T21:04:20+00:00 Tags: , , |